বিদেশ

বিশ্ববিদ্যালয়ে মেয়েদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করল তালিবান

"আগে ইসলাম, পরে অন্য সব কিছু" ফতোয়া তালিবানের
Taliban
By isafmedia - originally posted to Flickr as DSC_6183_smallUploaded using F2ComButton, CC BY 2.0, https://commons.wikimedia.org/w/index.php?curid=10786901
news-desk
নিজস্ব প্রতিনিধি
প্রকাশিত: 29/09/2021   শেষ আপডেট: 29/09/2021 11:37 a.m.

ইসলামি পরিবেশ তৈরি না হলে বিশ্ববিদ্যালয়ে মেয়েদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করল তালিবান (Taliban)। বুধবার কাবুল বিশ্ববিদ্যালয়ে নবনিযুক্ত উপাচার্য মহম্মদ আশরফ ঘইরত জারি করলেন এমনই এক ফতোয়া। দেশের অন্যতম বড় বিশ্ববিদ্যালয়ের এ হেন কার্যকলাপের পর কার্যত সেদেশে নারী শিক্ষা ও স্বাধীনতার উপর শরিয়ত আইনের প্রভাবই পড়ল বলছেন ওয়াকিবহাল মহল। অনেকে বলছেন সেদেশে ধীরে ধীরে ফিরে আসছে গত বছর কুড়ি আগের তালিবানি 'কঠোর' শাসন। কেবল পড়ুয়া নয়, বিশ্ববিদ্যালয়ে (University) ফিরতে পারবে না কোন শিক্ষিকা, মহিলা শিক্ষাকর্মীও।

উল্লেখ্য দিন কয়েক আগেই কাবুল বিশ্ববিদ্যালয়ের পূর্বতন উপাচার্য মহম্মদ ওসমান বাবুরিকে সরিয়ে নতুন উপাচার্য করা হয়েছে তালিবানপন্থী মহম্মদ আশরফ ঘইরতকে। তার জেরে ৮০ জনের বেশি শিক্ষক ইস্তফা দিয়েছিলেন। এবার এই নবনিযুক্ত উপাচার্য জারি করলেন এমনই এক ফতোয়া। তিনি জানিয়েছেন, "যতদিন দেশে ইসলামি পরিবেশ তৈরি হচ্ছে না, ততদিন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসেবে আমি মেয়েদের এখানে প্রবেশ করতে দিতে পারি না। আগে ইসলাম, পরে অন্য সব কিছু।" নয়া উপাচার্যের এই সিদ্ধান্তে সেদেশের নারী স্বাধীনতার উপর যে বড় প্রভাব পড়তে চলেছে, তা বলাই বাহুল্য।

ক্ষমতায় ফিরেই তালিবান জানিয়েছিল এ তালিবান আগের তালিবান দু'দশক আগের তালিবান নয়। গোটা বিশ্ব এক নতুন আফগানিস্তান দেখবে। তালিবানের তরফে মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ জানিয়েছিলেন, তালিবানের পূর্বতন জমানার ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি ঘটবে না। যদিও যত দিন যাচ্ছে দু'দশক আগের তালিবানের রূপই প্রকাশ পাচ্ছে। প্রথমে পুরুষ ও মহিলাদের আলাদা ক্লাসের কথা বলা হলেও বাস্তবে মহিলাদের যে শিক্ষার অধিকার থেকে বঞ্চিত করার উদ্দেশ্য নিয়ে এগিয়ে চলেছে তালিবান, তা কাবুল বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘটনায় ফের প্রমাণিত হল বলছেন ওয়াকিবহাল মহল।

উল্লেখ্য, দিন কয়েক আগেই আফগানিস্তানের নরসুন্দরদের উদ্দেশ্যে কড়া বার্তা দেওয়া হয়েছে, তাঁরা যাতে কারোর চুল, দাড়ি না কাটেন। সেখানে বলা হয়েছে আমেরিকানদের মতো দাড়ি ছাঁটা বা কাটা ইসলাম বিরোধী। তাছাড়া অপরাধ করলে হত্যা করে প্রকাশ্য শহরে দেহ ঝুলিয়ে রাখার মতো ঘটনা ঘটেছে। তালিবান বিরোধী কথা বললে চলছে ধড়পাকড়। এবার মহিলাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে আসার পথ সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করল তালিবান, এমনটাই বলছেন আন্তর্জাতিক বিশ্লেষকদের একাংশ।

আরও খবর

বিজ্ঞাপন দিন

[email protected]

Iskcon protest
বাংলাদেশে হিন্দুদের উপর হামলা, ১৫০টি দেশে প্রতিবাদ সভার আয়োজন করলো ইসকন
মায়াপুরে তাদের আন্তর্জাতিক হেডকোয়ার্টারে সবথেকে বড় প্রতিবাদ …
Arrest
Bangladesh : কুমিল্লার ঘটনার মূল চক্রী ইকবাল হোসেন গ্রেফতার
বাংলাদেশের কক্সবাজার এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে
iskon bangladesh camp
বাংলাদেশ ইসকন মন্দিরে হামলা, গোটা বিশ্বের ১৫০টি দেশে প্রতিবাদ কর্মসূচির ডাক ইসকনের
বাংলাদেশ ইসকন মন্দিরে হামলার ঘটনায় ইতিমধ্যে চাঞ্চল্য …
Bangladesh Iskcon violence
চিহ্নিত কুমিল্লার ঘটনার মূল ষড়যন্ত্রী, জানাল বাংলাদেশ পুলিশ
সিসিটিভি ফুটেজ দেখে চিহ্নিত মূল অভিযুক্ত
Shaikh hasina
বাংলাদেশ হিংসায় দোষীদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপের নির্দেশ হাসিনার, পাঁচ দিনে গ্রেফতার ৪৫০রও …
দুর্গাপূজার সময় থেকেই সাম্প্রদায়িক হিংসায় জর্জরিত বাংলাদেশ
Bangladesh Iskcon violence
বাংলাদেশে মৌলবাদী হামলার জের, পশ্চিমবঙ্গের সীমান্ত জেলায় বাড়ল নিরাপত্তা
বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে মৌলবাদীদের বিরুদ্ধে জোর …
Firearm gun pistol kill murder
নাইজেরিয়ায় বন্দুকবাজের হামলায় নিহত ৪৩, আহত আরও অনেকে
ইসলামিক জঙ্গি গোষ্ঠীর মদতেই এই হামলা বলে …
Shaikh hasina
বাংলাদেশ কি ধর্মনিরপেক্ষ হবে? অশান্তির মধ্যেই বড় ইঙ্গিত হাসিনার
বাংলাদেশ আবার শান্তি ফিরিয়ে আনার আবেদন জানিয়ে …
fire fighters flame
থামেনি হিংসার পারদ, এবার বাংলাদেশে পুড়ল হিন্দুদের ৬৫টি ঘর
এই হামলাকারীরা জামাত-ই-ইসলামি সংগঠনের সদস্য
Bangladesh Iskcon violence
বাংলাদেশের মৌলবাদীদের হামলার পিছেও কি তবে পাক-যোগ? কি বলছেন গোয়েন্দারা?
যদিও এই হিংসা বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয় বলেই …
Bangladesh Iskcon violence
Bangladesh : দশমীতে চলল তাণ্ডবলীলা, নোয়াখালিতে ভাঙা হল ইসকনের মন্দির
এই ঘটনায় একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে